রাজনীতি লক্ষ্য আন্দোলন গড়ে তোলা, ড. খন্দকার মোশাররফের সঙ্গে মাহমুদুর রহমান মান্নার বৈঠক

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও সরকারবিরোধী আন্দোলন গড়ে তোলার লক্ষ্যকে সামনে রেখে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করছে বিএনপি। এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার সন্ধ্যায় নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্নার সঙ্গে বৈঠক করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। এদিন সোয়া ছয়টায় আলোচনা করতে ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের বাসভবনে যান মান্না।

বৈঠকের বিষয়ে মাহমুদুর রহমান মান্না মানবজমিনকে বলেন, আমাকে ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন ফোন করেছেন। তাই তার বাসায় গেলাম। চা খেলাম। কথা বললাম। এটা আনুষ্ঠানিক কোনো বৈঠক নয়।

জানা গেছে, পরিবর্তিত পরিস্থিতি ও আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে বৃহত্তর রাজনৈতিক ঐক্য গড়তে যাচ্ছে বিএনপি।

এই ঐক্যে বিএনপির জোটভুক্ত দলগুলোর বাইরের রাজনৈতিক দলগুলোকেও অন্তর্ভুক্ত করতে চায় দলটি। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টভুক্ত দল, ইসলামপন্থি দল এবং বাম রাজনৈতিক দলগুলোকে এই ঐক্যে আনতে চায় বিএনপি। রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করতে সিনিয়র নেতাদের সমন্বয়ে তিন সদস্যবিশিষ্ট উচ্চপর্যায়ের দুটি কমিটি গঠন করেছে বিএনপি। এর জন্য তাদের ১০ দিন সময় বেধে দিয়েছেন ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

একটি কমিটির নেতৃত্বে আছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তার সঙ্গে রয়েছেন স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান ও নজরুল ইসলাম খান। এ কমিটি ২০-দলীয় জোট ও ঐক্যফ্রন্টের শরিক দলগুলোর সঙ্গে মতবিনিময় করবে। অপর কমিটির নেতৃত্বে রয়েছেন স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। তার সঙ্গে রয়েছেন স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু। গত ৩ জানুয়ারি বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠকে বিরোধী দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করার সিদ্ধান্ত নেন দলের নীতিনির্ধারকরা।

এদিকে ১০ ফেব্রুয়ারি গুলশানস্থ দলের চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি, জাতীয় পার্টি (জাফর) ও ইসলামী ঐক্যজোটের নেতাদরে সঙ্গে বৈঠক করেন বিএনপির মহাসচিব ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Previous post সরকারের কথায় মনে হয় তারা দেশকে সোনা দিয়ে মুড়িয়ে দিয়েছে
Next post রাজনীতি বিএনপি-জামায়াতের এমপিরা সংসদে আসতো নাঃ প্রধানমন্ত্রী