বিএনপিকে প্রত্যাখ্যান করল সিপিবি

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে ২৮ মার্চ বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) ডাকা হরতালে বিএনপির সমর্থন প্রত্যাখ্যান করেছে পার্টির কেন্দ্রীয় সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কমরেড শাহ আলম।

রোববার (১৩ মার্চ) চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের এস রহমান হলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ সিদ্ধান্তের কথা জানান তিনি।

কমরেড শাহ আলম বলেন, বিএনপির সমর্থন আমরা চাই না। তাদের কোমরে জোর থাকলে তারা আলাদাভাবে আন্দোলন করুক। তারাও সাম্রাজ্যবাদের পক্ষে। আমাদের যুদ্ধ সাম্রাজ্যবাদ, পুঁজিবাদি সমাজের বিপক্ষে। আমার কারও পাওয়ার গেমের হাতিয়ার হতে চাই না। আমরা নির্বাচনে যেতে চাই। আওয়ামী লীগ, বিএনপির বাহিরে আমরা বিকল্প হতে চাই।

বাংলাদেশের রাজনীতি আমলা, ব্যবসায়ীদের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে দাবি করে তিনি বলেন, রাজনীতি নিয়ন্ত্রণ করে আমলা ও ব্যবসায়ীদের একটি সার্কেল। এ বিশাল সার্কেল ভাঙতে না পারলে দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

ডিজিটাল নিরাপত্তার নামে সাংবাদিকদের স্বাধীনতা রুদ্ধ করা হয়েছে জানিয়ে কমরেড শাহ আলম বলেন, লুটেরাদের স্বার্থ হাসিলে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হয়েছে। এখন চাইলেও সাংবাদিকরা সব কিছু প্রকাশ করতে পারেন না। আমরা যা বলছি তাও আপনারা প্রকাশ করতে পারেন না।

তিনি বলেন, দেশ এখন দুইভাগে বিভক্ত। এর মধ্যে ৫ ভাগ একপাশে আর ৯৫ ভাগ অন্য পাশে। এই ৫ ভাগ সব ধরনের সুযোগ সুবিধা ভোগ করছে। অন্যদিকে ৯৫ ভাগ বিভিন্ন কিছু থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। ওই ৫ ভাগ গণতন্ত্র নিয়ন্ত্রণ করে। এই অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসা জরুরি।

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে এ মুক্তিযোদ্ধা বলেন, দুই হাজার কোটি টাকা লোপাট করার পর ভ্যাট মুক্ত করেছে সরকার। খাদ্য নিরাপত্তার জন্য কেন স্থায়ী রেশন ব্যবস্থা চালু করছে না সরকার। যেখানে যাবেন সব জায়গায় সিন্ডিকেট। এই সিন্ডিকেট ভাঙতে চাই না আমরা। আমরা কারও ক্ষমতায় যাওয়ার বাহন হতে চাই না।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সিপিবি চট্টগ্রাম জেলার সভাপতি আশোক সাহা ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা সিপিবির সভাপতি কানাই লাল দাশ, সাধারণ সম্পাদক শওকত আলী প্রমুখ।

উৎসঃ বাংলানিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Previous post ইউক্রেনে যাচ্ছে মার্কিন…
Next post এবার চীনা যুদ্ধবিমান দিয়ে রাফায়েলকে টেক্কা দেবে পাকিস্তান