পুতিন সম্পর্কে বিস্ফোরক তথ্য জানালেন রুশ সেনা

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন সম্পর্কে বিস্ফোরক তথ্য জানিয়েছেন ইউক্রেনে বন্দি এক রুশ সেনা। ওই সেনা জানান রাশিয়ার যেসব সেনা যুদ্ধ ক্ষেত্রে থেকে পালিয়ে যান, তাদের খুঁজে বের করে হত্যা করতে ‘মৃত্যুদণ্ড স্কোয়াড’ ব্যবহার করেন পুতিন। শনিবার ইন্টারফ্যাক্স-ইউক্রেনের প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে জেরুজালেম পোস্ট এক বিবৃতিতে জানিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পুতিন তার নিজ দেশের সেনাবাহিনীকেই বিশ্বাস করেন না এবং সৈন্যদের নিয়ন্ত্রণের স্ট্যালিনবাদী পদ্ধতি অবলম্বন করেন বলেই ওই ঘটনা ইঙ্গিত দিচ্ছে।

ইউক্রেন সিকিউরিটি সার্ভিসের (এসবিইউ) জিজ্ঞাসাবাদের সময় বন্দি আরেক রুশ সেনার বরাত দিয়ে ইন্টারফ্যাক্স-ইউক্রেন জানায়, এই পদক্ষেপও তাকে (পুতিন) সেই দাঙ্গা থেকে বাঁচাতে পারবে না, যা রাশিয়ান সেনাবাহিনীতে এরইমধ্যে শুরু হয়ে গেছে।

এসবিইউ বন্দি রুশ সেনাদের জিজ্ঞাসাবাদ থেকে পাওয়া তথ্যে ভিত্তিতে জানায়, রুশ সেনারা ইউক্রেনে প্রবেশের পর বুঝতে পারে যে তাদের যে শান্তিরক্ষা মিশনের কথা বলে পাঠানো হয়েছে, মূল ঘটনা তার ধারেকাছেও নেই।

তবে বন্দি রুশ সেনারা স্পষ্ট করে জানিয়েছে যে তারা পালিয়ে যেতে পারবেন না। কারণ পলাতক সেনারা রাশিয়ায় যাওয়ার চেষ্টা করলে তাদের হত্যা করা হবে বলে এসবিইউ জানিয়েছে।

এসবিইউ জানায়, ‘এখন, অপরাধের সহযোগী হয়ে, রুশ সেনারা আফসোস করছে যে তাদের রাশিয়ান ফেডারেশনের মেরিন সেনাদের মতো কাজ করার সাহস ছিল না… ওডেসার কাছে ৬০০ জন রাশিয়ান মেরিন সেনা বিদ্রোহ করে তাদের জাহাজ ছেড়ে যেতে অস্বীকার করেছিল, কারণ তারা বুঝতে পেরেছিল যে কী ঘটছে।’

রাশিয়ান ফেডারেশনের সেনাবাহিনী হতাশ এবং তাদের দমন করা হয়েছে। তাই ইউক্রেনের বিজয় খুব বেশি দূরে নয় বলে দাবি করেছে এসবিইউ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Previous post জাল সনদে ১০ বছর চাকরি, ফেরত দিতে হবে বেতনের পুরো টাকা
Next post ইউক্রেনের বিমানবন্দর দখল