রাশিয়ার বিরুদ্ধে ইউক্রেনের নতুন ‘অস্ত্র’ হেজহগ!

‘হেজহগ’ নামটি শুনলেই সজারুর মতো দেখতে ছোট প্রাণীটির ছবি চোখে ভেসে ওঠে। তবে সজারু নয়, বলা হচ্ছে রাশিয়ার ট্যাংক ঠেকাতে ইউক্রেনের নতুন ‘অস্ত্র’ হেজহগের কথা।

হেজহগ হলো বড় বড় লোহার বিম কেটে সেগুলোকে জুড়ে তৈরি করা এক ধরনের গার্ডরেল। এই গার্ডরেল ইউক্রেনের গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলোতে রুশ ট্যাংকের গতি প্রায় অবরুদ্ধ করে দিতে সাহায্য করেছে বলে বার্তা সংস্থা এএফপি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

রাশিয়ার বিরুদ্ধে এই ‘অস্ত্র’ ইউক্রেনীয় সেনা এবং নাগরিকরা ব্যবহার করলেও হেজহগের উৎপত্তি সাবেক চেকোস্লোভাকিয়ায়।

একে ‘অ্যান্টি-ট্যাংক অবস্ট্যাকল ডিফেন্স’ বলা হয়। হালকা এবং মাঝারি মাপের ট্যাংকের গতি রুদ্ধ করতে এই হেজহগের দেওয়াল যথেষ্ট কার্যকরী হয়েছিল দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়। কোনো গাড়ি বা ট্যাংক এই লৌহনির্মিত দেওয়ালের উপর দিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে আটকে যাবে। এমনকি ক্ষতিগ্রস্তও হবে। এক একটি হেজহগের ওজন ১০০ কেজি।

afp ের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাশিয়া যে দিন ইউক্রেনে সামরিক হামলা চালায় সেদিনই পশ্চিম ইউক্রেনের লাভিভ শহরে এক দল মানুষ ইউটিউব দেখে এই হেজহগ বানানো শুরু করে। আশপাশ থেকে সংগ্রহ করা লোহা-লক্কর দিয়ে একের পর এক হেজহগ বানানো শুরু করেন তারা।

শুধু তাই নয়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হেজহগ বানানোর এই কৌশল ছড়িয়ে দেন তারা। জানান, ট্যাংক আটকাতে এই ‘অস্ত্র’ ভীষণ কার্যবকর। সবাইকে যত দ্রুত সম্ভব এই হেজহগ বানিয়ে রুশ সেনাট্যাংকের গতিরোধ করতেও পরামর্শ দেন তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Previous post রাশিয়ার বহর গুঁড়িয়ে দেওয়ার দাবি ইউক্রেনের (ভিডিও)
Next post পুতিনকে ভার্চুয়াল বৈঠকে যা বললেন জার্মান-ফ্রান্স প্রেসিডেন্ট