দেশজুড়েই চলছে সরকারদলীয় সন্ত্রাসীদের তাণ্ডব

সরকার নিজেদের ব্যর্থ চেহারা ঢাকতেই বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর ওপর নির্যাতন অব্যাহত রেখেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার গণমাধামে পাঠানো এক সংবাদ বিবৃতিতে এ মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘সরকার নিজেদের ব্যর্থ চেহারা ঢাকতেই বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর ওপর নির্যাতন অব্যাহত রেখেছে। যেহেতু সরকারের জনসমর্থন নেই, তাই ক্ষমতায় টিকে থাকতে ফ্যাসিবাদী নীতি অবলম্বন করে নিজেদের কর্তৃত্ববাদী শাসন জার রেখেছে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশ থেকে সুশাসন নিরুদ্দেশ হয়ে যায়।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘বর্তমান সরকার ও তাদের পেটোয়া বাহিনী দ্বারা কেউ নিরাপদ নয়। মানুষের জান-মালের নিরাপত্তা অনিশ্চিত। দেশজুড়েই চলছে সরকারদলীয় সন্ত্রাসীদের তাণ্ডব। বিরোধী দলসহ ভিন্নমতের মানুষদের কণ্ঠরোধ করার জন্য সারাদেশে এরা গড়ে তুলেছে রক্তাক্ত সন্ত্রাসী পরিকাঠামো। এদের দ্বারা জনপদের পর জনপদে রক্ত ঝরছে, অত্যাচারিত হচ্ছে বিরোধী পক্ষের মানুষসহ সাধারণ জনগণ।

বিএনপি মহাসচিব অবিলম্বে ফুলগাজী উপজেলা জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের আহ্বায়ক মো. আবু ইউসুফ এবং দাগণভূঁইয়া উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিবের ওপর সন্ত্রাসীদের হামলা এবং তাদেরকে গুরুতর আহত করার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। পাশাপাশি অবিলম্বে দুস্কৃতিকারীদের শাস্তির জোর দাবি জানান তিনি।

অপর এক বিবৃতিতে ফখরুল বলেন, ‘বিএনপিসহ বিরোধী নেতাকর্মীদের ওপর সরকারের আইন শৃঙ্খলা বাহিনী ও সরকারদলীয় সন্ত্রাসীদের জুলুম-নির্যাতন এখন মারাত্মক আকার ধারণ করেছে।

গণতন্ত্রকে বিলীন করে আইনকে হাতের মুঠোয় নিয়ে সরকারি দলের সন্ত্রাসীরা যেমন সমগ্র দেশে নিজেদের আধিপত্য বজায় রাখতে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে, একইভাবে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীও বর্তমান সরকারের দোসর হিসেবে বিরোধী নেতাকর্মীদের ওপর হামলা, নির্যাতন ও গ্রেপ্তারে মাতোয়ারা হয়ে উঠেছে। বর্তমানে আওয়ামী ফ্যাসিবাদ আরও ভয়ঙ্কর রুপে আত্মপ্রকাশ করেছে।’

তিনি বলেন, ‘আজ আওয়ামী সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা পটুয়াখালী জেলা বিএনপির কার্যালয়ে অতর্কিতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর ও কার্যালয় তালাবদ্ধ করে দেয়াসহ গত ৫ মার্চ দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে পটুয়াখালী জেলাধীন দুমকি উপজেলা বিএনপি আয়োজিত শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ কর্মসূচির ঘটনাকে কেন্দ্র করে মিথ্যা মামলায় উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক খলিলুর রহমানসহ ১০ জন নেতাকর্মীর জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণ বর্তমান গণবিচ্ছিন্ন সরকারের ধারাবাহিক অপকর্মের অংশ।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Previous post সরকার পতন অনিবার্য
Next post নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করে পদত্যাগ করতে হবে