মা বাঙালি, বাবা জার্মান তা সত্ত্বেও নিজের ব্যাবহার করেন মুসলিম পদবী, কারণ…

বলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির খুব সুন্দর এবং সেরা বলিউড অভিনেত্রী হলেন দিয়া মির্জা (Diya Mirza) । তিনি তাঁর ফিল্ম ক্যারিয়ারে অনেক ছবিতে কাজ করেছেন। তিনি কোটি-কোটি দর্শকের মন জয় করে নিয়েছেন। অভিনেত্রীর একটি জনপ্রিয় ফিল্ম হলো ‘রেহনা হ্যায় তেরে দিল মে’। যেখানে তিনি তাঁর চরিত্রের জন্য লক্ষ লক্ষ দর্শকের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে।

দিয়া মির্জা দেখতেও খুবই সুন্দর। তাঁর অভিনয়ের দক্ষতা দর্শকরা আগেও দেখেছেন। তিনি হয়তো বলিউডের ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির সুপারস্টার অভিনেত্রী নাও হতে পারেন, তবে তিনি একজন সুপারস্টার অভিনেত্রী চেয়ে কম নন। তিনি তাঁর পেশাদার জীবনের পাশাপাশি, তাঁর ব্যক্তিগত জীবনে প্রায়শই আলোচনা হয়ে থাকে।

দিয়া মির্জা, তাঁর জীবনে অনেক উঠাপড়ার দিন দেখেছেন। তাঁর যখন মাত্র ৯ বছর বয়স, তখন তাঁর বাবা-মায়ের মধ্যে বিচ্ছেদ হয়ে যায়। তাঁর বাবা ফ্রাঙ্ক হেনড্রিচ, জার্মানির বাসিন্দা ছিলেন। ডিভোর্সের পর তাঁর মা আজিজ মির্জাকে বিয়ে করেন। তাঁর সাথে তাঁর দ্বিতীয় পিতার সম্পর্ক খুবই কাছের ছিল। তিনি তাঁর দ্বিতীয় পিতাকে খুবই ভালোবাসেন। তাঁর পিতার টাইটেলও তিনি ব্যবহার করেন।

দিয়া মির্জা মাত্র ১৮ বছর বয়সে ২০০০ সালে মিস এশিয়া প্যাসিফিকের মতো বড় খেতাব জিতেছিলেন। তিনি তাঁর ফিল্ম ক্যারিয়ারে ‘তুমকো না ভুল পিওন’, ‘সালাম মুম্বাই’, ‘রেহেনা হ্যায় তেরে দিল মে’, ‘ তুমসা নাহি দেখা লাগে রাহ মুন্না ভাই’ প্রমুখ জনপ্রিয় চলচ্চিত্র অভিনয় করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Previous post আর কিনতে হবে না, বাড়ির সাধারণ পাত্রে লাগান এলাচ, খেয়াল রাখুন ৩ টি বিষয়
Next post রেজাল্টে এসেছিল ১ নাম্বার কম, বোর্ডের বিরুদ্ধে গিয়েছিল কোর্টে, ৩ বছর পর বাড়ল ২৮ নাম্বার