তুরাগ তীরের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে বিআইডব্লিউটিএর অভিযান

গাবতলী থেকে আশুলিয়া ল্যান্ডিং স্টেশন পর্যন্ত তুরাগ নদের তীরভূমি হতে সপ্তম দিনের মতো অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ কার্যক্রম চালিয়েছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)। আজকের অভিযানে ৪৬টি নদীর সীমানা পিলার অবমুক্ত করা হয়।

এছাড়া ১টি বালুর গদী উচ্ছেদ, ৩০টি বাশের মাচা অপসারণ, ১৪টি দখলকৃত জায়গার মাটি এবং ২৮টি টংঘর অপসারণ করা হয়। অভিযানে নদী তীরভূমির প্রায় ১.২৫ একর জমি দখল মুক্ত করা হয়।

সকাল ১০টা থেকে বিকেল সাড়ে ৬টা পর্যন্ত চলা অভিযানে নেতৃত্ব দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ওবায়দুল্লাহ। অভিযান পরিচালনা করেন ঢাকা নদী বন্দরের নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তার মো. গুলজার আলী। এ ছাড়া অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

মো. গুলজার আলী কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘নদীর জায়গা নদীকে ফিরিয়ে দেওয়ার আগ পর্যন্ত অভিযান অব্যাহত থাকবে। দখলদারদের আমরা বার বার জানাচ্ছি। এরপরও যারা থাকতে চাইবে তাদের জিনিসপত্র নষ্ট হলে কিছু করার থাকবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Previous post ডা. জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে মামলা, সমন জারি
Next post বোরকা পরা মুসলিম নারীদের পেটালো ভারতীয় পুলিশ: এনডিটিভি