পশ্চিমা দেশগুলোর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিতে যাচ্ছে রাশিয়া

রাশিয়া জানিয়েছে পশ্চিমা দেশগুলোর দেওয়া নিষেধাজ্ঞার জবাব দিতে কাজ করছে তারা।

রাশিয়া হুঁশিয়ারি দিয়ে জানিয়েছে, পশ্চিমাদের ওপর আরোপিত রাশিয়ার নিষেধাজ্ঞা হবে কঠোর। আর এর প্রভাব পড়বে পশ্চিমাদের সবচেয়ে সংবেদনশীল বিষয়গুলোতে।

ইউক্রেনে হামলা করার পর রাশিয়ার ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও পশ্চিমা দেশগুলো।

পশ্চিমাদের দেওয়া নিষেধাজ্ঞার কারণে ১৯৯১ সালে সোভিয়েত ইউনিয়ন ভেঙে যাওয়ার পর অর্থনৈতিকভাবে সবচেয়ে খারাপ সময় পার করছে রাশিয়া।

এখন রাশিয়াকে যেহেতু নিষেধাজ্ঞা দিয়ে পশ্চিমারা চাপে রেখেছে। তাই রাশিয়াও এখন তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে তাদের চাপে ফেলতে চায়।

এ ব্যাপারে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা দিমিত্রি বিরিচেভস্কি বলেন, রাশিয়ার প্রতিক্রিয়া হবে কঠোর, উদ্বেগজনক ও সংবেদনশীল।

মঙ্গলবার রাশিয়ার তেল ও গ্যাসের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

এর আগেই রাশিয়া হুঁশিয়ারি দিয়েছিল যদি যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্ররা রাশিয়ার জ্বালানির ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয় তাহলে তাদের প্রতি ব্যারেল তেল কিনতে হবে ৩০০ ডলার বা তারও বেশি দামে।

রাশিয়া জানিয়েছে, প্রতি বছর ইউরোপের প্রয়োজন হয় ৫০০ মিলিয়ন টন তেল। এরমধ্যে ৩০ ভাগ, মানে ১৫০ মিলিয়ন টন তেলের যোগান দেয় রাশিয়া। সঙ্গে প্রতি বছর ৮০ মিলিয়ন টন পেট্রোকেমিকেলের যোগানও দেয় দেশটি।

সূত্র: রয়টার্স

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Previous post দ্রব্যমূল্য বাড়ানোর পেছনে বিএনপির হাত! ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ আ’লীগের
Next post পুতিনের হুঁশিয়ারিতে পিছু হটল যুক্তরাষ্ট্র!