ইউক্রেনে রুশ বাহিনীর অভিযানে ৪৭৪ জন নিহত

রুশ বাহিনীর হামলায় ইউক্রেনে এ পর্যন্ত ১ হাজার ৩৩৫ জন বেসামরিক লোক হতাহত হয়েছেন।

জাতিসংঘের সবশেষ পরিসংখ্যান অনুযায়ী ইউক্রেনে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রুশ অভিযান শুরু হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত এসব লোক হতাহত হয়েছেন।

জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক কমিশনার লিজ থ্রোসেল বলেন, এর মধ্যে ৪৭৪ জন নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ২৯ শিশু রয়েছে। এ সময় ৮৬১ জন আহত হয়েছেন। তবে প্রকৃত সংখ্যা অনেক বেশি হতে পারে। খবর সিএনএনের।

হতাহতের বেশিরভাগই বিমান হামলা ও বিস্ফোরক অস্ত্রে আহত হয়েছেন। ইউক্রেনের শহরগুলোতে শত শত আবাসিক ভবন ধ্বংস হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নিহতদের মধ্যে একজন সাংবাদিক রয়েছেন বলে জানা গেছে। এ ছাড়া জাতিসংঘ বলছে, যুদ্ধবিরোধী বিক্ষোভ প্রদর্শনের জন্য রাশিয়ায় প্রায় ১২ হাজার ৭০০ লোককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এদিকে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ইউক্রেনের পরিস্থিতিকে ‘দুর্ভাবনার’ বলে বর্ণনা করে ‘সর্বোচ্চ সংযমের’ আহ্বান জানিয়েছেন।

শি মঙ্গলবার ফরাসী প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ ও জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শোলৎজের সঙ্গে এক ভার্চুয়াল বৈঠক করার সময় এ কথা বলেন।

চীনা প্রেসিডেন্ট বলেন, রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যকার শান্তি আলোচনাকে তিন দেশেরই সমর্থন দেওয়া উচিত এবং পরিস্থিতি যাতে নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে না যায় তার ওপর অগ্রাধিকার দিতে হবে।

উল্লেখ্য, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের নির্দেশের পর ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে রুশ বাহিনী। এ অভিযানের অংশ হিসেবে স্থল, আকাশ ও জলপথে ইউক্রেনে হামলা চালানো হচ্ছে। অভিযান শুরুর পর ইউক্রেনের সেনাবাহিনীও প্রতিরোধের চেষ্টা চালাচ্ছে। এতে দুপক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘাত চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Previous post পুতিনকে থামাতে পারবেন শুধু এরদোগান!
Next post ইউক্রেনে এ পর্যন্ত কতজন রুশ সেনা নিহত হয়েছেন?