‘মুহূর্তে মধ্যে’ সামরিক অভিযান বন্ধ করার ঘোষণা রাশিয়ার

ইউক্রেন মস্কোর কিছু শর্ত মেনে নিলে ‘মুহূর্তে মধ্যে’ দেশটিতে সামরিক অভিযান বন্ধ করার ঘোষণা দিয়েছে রাশিয়া।

রুশ প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ সোমবার মস্কোতে এক বক্তব্যে বলেছেন, ইউক্রেনকে নিজের সংবিধানে এমন সংশোধনী আনতে হবে, যাতে তার পক্ষে ন্যাটো জোটের মতো কোনো ব্লকে যোগ দেওয়া সম্ভব না হয়। খবর রয়টার্সের।

তিনি রাশিয়ার অন্য শর্ত তুলে ধরে বলেন, ক্রিমিয়াকে রাশিয়ার অংশ এবং দোনেস্ক ও লুহানস্ককে স্বাধীন দেশ হিসেবে স্বীকৃতি দিতে হবে ইউক্রেনকে।

সোমবার যখন ইউক্রেনের সঙ্গে রাশিয়া তৃতীয় দফা শান্তি আলোচনায় বসতে যাচ্ছিল, তখন পেসকভ এসব পূর্বশর্ত ঘোষণা করেন।

সোমবারের আলোচনায় দৃশ্যত তেমন কোনো অগ্রগতি অর্জিত হয়নি এবং উভয়পক্ষ আরও আলোচনা করার কথা ঘোষণা দিয়েছে।

ক্রেমলিনের মুখপাত্র পেসকভ আরও বলেন, ইউক্রেনকে ‘নিরস্ত্রীকরণের’ যে অভিযান রাশিয়া চালাচ্ছে, তা ‘যে কোনো মুহূর্তে’ বন্ধ করে দেওয়া হবে, যদি তার দেশের এ শর্তগুলো ইউক্রেন মেনে নেয়।

তিনি স্পষ্ট করে বলেন, ইউক্রেনের আর কোনো ভূখণ্ডকে নিজের বলে দাবি করবে না মস্কো।

রাশিয়া ২০১৪ সালের মার্চ মাসে ক্রিমিয়া প্রজাতন্ত্রে অনুষ্ঠিত এক গণভোটের ফল অনুযায়ী ওই প্রজাতন্ত্রকে রুশ ফেডারেশনের অন্তর্ভুক্ত করে।

এ ছাড়া গত মাসে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় রুশ ভাষাভাষী অধ্যুষিত দুই অঞ্চল দোনেস্ক ও লুহানস্ককে স্বাধীন রাষ্ট্রের মর্যাদা দিয়েছে রাশিয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Previous post কিয়েভগামী রাশিয়ার সামরিক বহর কি করছে এখন
Next post বিএনপির নেতা যুবলীগের সহসভাপতি!