গ্যাস সরবরাহ বন্ধের হুমকি রাশিয়ার

রাশিয়া বলেছে, পশ্চিমারা রাশিয়ার তেল নিষেধাজ্ঞা নিয়ে সামনে এগোলে জার্মানিতে নিজেদের মূল গ্যাস পাইপলাইন বন্ধ করে দিতে পারে মস্কো। রাশিয়ার উপ-প্রধানমন্ত্রী আলেকজান্ডার নোভাক বলেছেন, রাশিয়ার তেল প্রত্যাখ্যান বৈশ্বিক বাজারে মারাত্মক পরিণতি বয়ে নিয়ে আসতে পারে।

রাশিয়ার তেলের ওপর পশ্চিমারা নিষেধাজ্ঞা দিলে মূল্য দ্বিগুণ বেড়ে প্রতি ব্যারেল তিনশ ডলারে উঠে যেতে পারে বলেও সতর্ক করে দিয়েছেন নোভাক।

ইউক্রেনে মস্কোর হামলা অব্যাহত থাকার ঘটনায় রাশিয়ার তেল নিষেধাজ্ঞায় রাখার ব্যাপারে মিত্রদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র আলাপ করেছে।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন তাদের ৪০ শতাংশ গ্যাস এবং ৩০ শতাংশ তেল রাশিয়া থেকে নেয়। রাশিয়া থেকে বিপুল পরিমাণ আমদানির বিকল্প খুঁজে পাওয়াটাও এতোটা সহজ নয়।

রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে দেওয়া ভাষণে নোভাক বলেছেন, ইউরোপের বাজারে রাশিয়ার তেলের বিকল্প দ্রুত খুঁজে পাওয়া অসম্ভব। … মানানসই সিদ্ধান্ত নেওয়ার সব ধরনের অধিকার আমাদের রয়েছে এবং নর্ড স্টিম ১ গ্যাসপাইপলাইন দিয়ে গ্যাস পাঠানোর ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হতে পারে।

বিশ্বের শীর্ষ প্রাকৃতিক গ্যাস উৎপাদক রাশিয়া। বিশ্বে অপরিশোধিত তেলের দ্বিতীয় শীর্ষ উৎপাদক দেশটি। সে দেশের জ্বালানি শিল্পের ওপর যেকোনো ধরনের নিষেধাজ্ঞা অর্থনীতিকে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করবে।

এ ধরনের নিষেধাজ্ঞা আরোপের উপায় খুঁজতে পশ্চিমাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ইউক্রেন। এই উদ্বেগ থেকে ইতোমধ্যে তেলের দাম বাড়তে শুরু করেছে। যে কারণে গত ১৪ বছরের মধ্যে তেলের দাম সর্বোচ্চ হয়েছে।

সূত্র: বিবিসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Previous post রুশ সেনা পাহারায় চেরনোবিলে অস্বস্তির প্রহর
Next post আপনার দিন শেষ, শামীম ওসমানকে আইভী