হস্তক্ষেপ না করার ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক করে দিলেন সালমান

সউদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান বলেছেন, তার সম্পর্কে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ভুল বুঝেছেন কি-না সেটি তিনি পরোয়া করেন না। একই সঙ্গে তিনি মার্কিন প্রেসিডেন্টকে নিজের দেশের স্বার্থের ব্যাপারে চিন্তা-ভাবনা করার পরামর্শ দিয়েছেন।

আজ বৃহস্পতিবার মার্কিন দৈনিক দ্য আটলান্টিককে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব মন্তব্য করেছেন সউদি যুবরাজ। এমবিএস নামে পরিচিত বিশ্বের শীর্ষ তেল রফতানিকারক মধ্যপ্রাচ্যের এই দেশটির ডি ফ্যাক্টো শাসক যুক্তরাষ্ট্রকে সউদি রাজতন্ত্রের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ না করার ব্যাপারেও সতর্ক করে দিয়েছেন।

বাইডেন তার (যুবরাজ) সম্পর্কে কিছু ভুল বুঝেছেন কি-না প্রশ্নের জবাবে মোহাম্মদ বিন সালমান বলেন, সাধারণভাবে, আমি কোনো পরোয়া করি না। আমেরিকার স্বার্থ নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করাটা বাইডেনের বিষয়। আমার নয়।

তিনি বলেন, আমেরিকায় আপনাকে নিয়ে বক্তৃতা দেওয়ার অধিকার আমাদের নেই। একই বিষয় অন্যদের ক্ষেত্রেও। যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সউদি যুবরাজের দহরম-মহরম সম্পর্ক থাকলেও প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ক্ষেত্রে তা ভাটা পড়েছে।

দেশে ভিন্নমতাবলম্বীদের ওপর ব্যাপক মানবাধিকার লঙ্ঘন এবং ২০১৫ সালের শুরু থেকে ইয়েমেনে সউদি নেতৃত্বাধীন জোটের যুদ্ধের ঘটনায় সউদি আরবের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিয়েছেন জো বাইডেন।

২০১৮ সালে সউদি রাজপরিবারের সমালোচক এবং ওয়াশিংটন পোস্টের সাংবাদিক জামাল খাশোগির হত্যায় জড়িত থাকার মার্কিন অভিযোগ নাকচ করে যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান বলেছেন, আমেরিকার সাথে ‘দীর্ঘ, ঐতিহাসিক’ সম্পর্ক বজায় রাখা এবং শক্তিশালী করাই রিয়াদের লক্ষ্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Previous post এসএমপির এক সুন্দরী নারী কনেস্টবল সংসারে ও সম্পদে বেপরোয়া, তোলপাড়!
Next post অধিক মস্কো-প্রীতিতে দু’কূলই গেলো নয়াদিল্লির!