অপারেশনের পর ছয়দিনেও জ্ঞান ফেরেনি রোগীর, ছেলের দাবি ভুল চিকিৎসা

ভুল চিকিৎসার (অপারেশন) কারণে ছয় দিনেও রোগীর জ্ঞান ফেরেনি বলে দাবি স্বজনদের। ওই নারী বর্তমানে (৪ মার্চ) ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সিসিইউ বিভাগে ভর্তি।

রোগীর ছেলে মো. শাহ আলম শেখ বলেন, ২৫ ফেব্রুয়ারি আমার মা লাকী বেগম পড়ে গিয়ে পা ভেঙ্গে যায়। ওই দিনই ফরিদপুর শহরের দেশ ক্লিনিকে এনে ভর্তি করা হয়। পরদিন ২৬ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে নয়টার দিকে ডা. অনাদী রঞ্জন মন্ডল অস্ত্রপচার করেন।

শাহ আলম শেখের দাবি, অস্ত্রপচারের পর থেকে তার মায়ের জ্ঞান না ফেরায় এবং অবস্থার অবনতি হওয়ায় পরদিন ২৭ ফেব্রুয়ারি সকালে তড়িঘড়ি করে ক্লিনিক থেকে রিলিজ করে ফরিদপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। এখনও তার মায়ের জ্ঞান ফেরেনি।

তবে ওই রোগীর অস্ত্রোপচারকারী চিকিৎসক ডা. অনাদী রঞ্জন মন্ডল জানান, অস্ত্রোপচারকালে ওই রোগীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়নি। যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে অস্ত্রোপচার করা হয়। ওই রোগী ব্রেইন ও হার্ট স্ট্রোক করে থাকতে পারেন। তবে কেন এমন হলো তা তিনি বলতে পারেননি। পায়ের হাড়ভাঙা অপারেশনের কারণে এমনটি হওয়ার সম্ভাবনা নেই বলে দাবি করেন তিনি।

এ বিষয়ে দেশ ক্লিনিকের ব্যাবস্থাপনা পরিচালক আহামদুল বারী বাবু বলেন, রোগী অস্ত্রোপচার করার পরও ঠিক ছিলেন। তবে অস্ত্রোপচারের কিছু সময় পর ওই রোগীর ভাইয়ের মৃত্যুর সংবাদ আসে। যা শোনার পর থেকে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং স্ট্রোক করেন বলে ধারণা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Previous post ঘুস না পেয়ে মনগড়া প্রতিবেদন দেওয়ার অভিযোগ তহশিলদারের বিরুদ্ধে
Next post যেখানে বাধা আসবে, সেখানেই লড়াই হবে। কারাফটক ভেঙে রাজবন্দিদের মুক্ত করবো: ইশরাক