আ.লীগ সরকারের হাতে গড়া নতুন নির্বাচন কমিশন নিয়ে বিএনপির কোনো আগ্রহই নেই

সদ্য ঘোষিত নতুন নির্বাচন কমিশন নিয়ে কোনো আগ্রহই নেই বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

কাজী হাবিবুল আউয়ালের নেতৃত্বে নতুন নির্বাচন কমিশনের প্রজ্ঞাপন জারির পর তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি এই মন্তব্য করেন।

ফখরুল বলেন, ‘নতুন সিইসি বা কমিশনার কারা হলেন এটা নিয়ে আমাদের কোনো আগ্রহই নেই। এটি নিয়ে আমরা কোনো কথাই বলতে চাই না। আমাদের মূল কথা হচ্ছে, আওয়ামী লীগ সরকারে থাকলে কোনো নির্বাচন কমিশনের পক্ষে নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচন করা সম্ভব নয়।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘দলীয় সরকারের অধীনে যে নির্বাচন সুষ্ঠু হয় না তা তো ২০১৪ সালের নির্বাচন বলুন, ২০১৮ সালের নির্বাচন বলুন, স্থানীয় সরকার নির্বাচন বলুন- এই সবগুলোতে নির্বাচনে তা প্রমাণিত হয়েছে। আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে নির্বাচন কমিশন তাদের আজ্ঞাবহ হয়, তাদের অনুগত হয়ে কাজ করে। তাই সরকারের আওয়ামী লীগ থাকলে সেখানে নির্বাচন কোনোভাবেই নিরপেক্ষ হবে না-এটাই সার্বজনীন সত্য।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের দলের অবস্থান পরিষ্কার- নির্দলীয় সরকারের অধীনেই নির্বাচন হতে হবে। কোনো দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে বিএনপি যাবে না।’

এ বিষয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু বলেন, এ কমিশন নিয়ে আমাদের কোনো আগ্ৰহ ছিল না। এখনো নেই। নতুন ইসিতে যাদের নাম দেখলাম এটা আরেকটি হুদা কমিশন হয়েছে। এদের প্রত্যেকেই শেখ হাসিনা সরকারের সুবিধাভোগী।

ইসি নিয়ে টুকু আরও বলেন, আমাদের কথা স্পষ্ট- শেখ হাসিনার অধীনে আমরা নির্বাচনে যাব না। তার করা কোনো কমিশনের অধীনেও না। নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার, তাদের করা নিরপেক্ষ ইসি ও প্রসাশন হলেই আমরা নির্বাচনে যাব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Previous post বিডিআর বিদ্রোহ দমনের জন্য সেনাবাহিনীকে পাঠানো হয়নি রাজনৈতিক নির্দেশে
Next post জেলেনস্কির ‘বীরত্ব-সাহসিকতা’র প্রশংসায় বরিস জনসন