মানুষ আর কত চুপ করে থাকবে: আমির খসরু

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, দেশে আজ সবকিছুতে অপরাজনীতি করা হচ্ছে। দুঃখের বিষয় যে দেশের রাজনীতি এখন এমন একটা অবস্থায় চলে গেছে ক্ষমতায় থাকার জন্য যা যা করার সবই করা হচ্ছে। মানুষের এটা থেকে ভালো হলো না খারাপ হলো কেউ চিন্তা করছে না। কিন্তু এই রাজনীতি তো চলতে দেয়া যায় না। মানুষ আর কত চুপ করে থাকবে। মানুষ একদিন ঠিকই তার কথা বলবে।

মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি ) বাংলাদেশ লায়ন্স ফাউন্ডেশন হাসপাতালে ঢাকা মেগাসিটি লায়ন্স ক্লাবের উদ্যোগে এবং বাংলাদেশ লায়ন্স ফাউন্ডেশন ও লায়ন ড. শেখ ফরিদুল ইসলামের আর্থিক সহযোগিতায় ‘বিনামূল্যে চক্ষু শিবির ২০১৯এর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন তিনি।

আমির খসরু বলেন, আজকে আমাদের দেশে কেউ ভালো কাজ করতে গেল বাধার সম্মুখীন হতে হয়। এর চেয়ে দুঃখের বিষয় আর হতে পারে না। কারণ এটা তো কোন রাজনীতি না। যারা ভালো কাজে বাধা দেয় তারা অপরাজনীতি করে। এটা হচ্ছে গণবিরোধী রাজনীতি। জনগণের বিপক্ষের রাজনীতি। আমরা তো রাজনীতি করি জনগণের কে মাথায় নিয়ে।

তিনি বলেন, মানুষের বিভিন্ন আদর্শ থাকতে পারে। স্বতন্ত্র রাজনীতি করতে পারে। সে কাকে ভোট দিবে তার আলাদা মতাদর্শ থাকতে পারে।কিন্তু যখন সে ভালো কাজ করবে তখনতো ভালো কাজে বাধা দেওয়ার অধিকার কারো নাই। জোর করে রাজনীতি করার চেয়ে বড় অন্যায় আর কিছু হতে পারে না। আপনি রাজনীতি তো মানুষের উপর চাপিয়ে দিতে পারেন না। রাজনীতি করতে গেলে উদারতা থাকতে হবে। আর ভালো কাজে সহায়তা করতে হবে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য বলেন, মানুষের চোখের আলো ফিরিয়ে দেয়া হচ্ছে পৃথিবীর সবচেয়ে উত্তম কাজ যেটা গত ১২ বছর ধরে ড. শেখ ফরিদ করে আসছেন। সমাজের সুবিধা বঞ্চিত মানুষের উপকার হচ্ছে। মানুষের উপকার করলে আল্লাহ খুশি হন। এটা হচ্ছে সবচেয়ে বড় ইবাদত। আমি তার কাজকে সাধুবাদ জানাই। আশা করি আপনারাসহ তাকে সহযোগিতা করলে আগামীতে সে তার কাজ অব্যাহত রাখতে পারবে।

এসময় আরও বক্তব্য রাখেন, ঢাকা মেগাসিটি লায়ন্স ক্লাবের পরিচালক লায়ন খন্দকার মোবারক হোসেন, ঢাকা মেগাসিটি লায়ন্স ক্লাবের সভাপতি ড. শেখ ফরিদুল ইসলাম, জেলা ৩১৫ এ২ এবং ক্যাম্পের প্রধান সমন্বয়কারী খান আলী আজম।

পূর্বপশ্চিমবিডি/

Author: shafah

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *